ভোলায় মধ্যযুগীয় কায়দায় স্ত্রীকে নির্যাতন

0
421

জভেদ মাহামুদ ফিরোজ ॥
ভোলার ইলিশায় প্রবাসী মহিলাকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্বামী-শ্বাশুরীর নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ বর্তমানে ভোলা সদর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। রবিবার (২৫ আগস্ট) সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ চরপাতা কাইমুদ্দিন বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

ভোলা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের ডোমপট্টি এলাকার মোঃ দুলালের মেয়ে জর্ডান প্রবাসী তাসনুর বেগম জানান, গত বছর তিনি ভোলায় আসেন। দেশে এসে স্বামীর কাছে তার পাঠানো টাকার হিসাব চাইলে দু’জনের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। এর পর থেকে বিভিন্ন সময় স্বামী পশ্চিম ইলিশার ৩নং ওয়ার্ডের আবু তাহেরের ছেলে মোঃ কামাল হোসেন তার উপর শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন চালায়। এক পর্যায়ে কামাল ও তার স্বজনরা গতকাল রবিবার তার উপর চড়াও হয়ে বেধড়ক মারধর করে।

তাকে সিগারেটের আগুন দিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে ছ্যাকা দেয়। তার গায়ে অর্ধশতাধিক ছ্যাকা দেওয়ার দাগ রয়েছে। এতে সে মারাত্মক অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। নির্যাতনের শিকার প্রবাসী তাসনুর বেগম এই ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন।

এ ঘটনায় ভোলা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ছগির মিঞা জানান, খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম হাসপাতালে ভিকটিমকে দেখতে যান এবং খোঁজখবর নেন। এ ব্যাপারে ভোলা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত কামাল হোসেনের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি