প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের বেতন গ্রেড নিয়ে হাইকোর্টের রুল

0
170

বিশেষ প্রতিনিধিঃ-
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের ১৪তম গ্রেডে বেতন নির্ধারণের গেজেট কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে রুলে সহকারী শিক্ষকদের বেতন কেন ১১তম গ্রেডে প্রদান করা হবে না তাও জানতে চেয়েছেন আদালত।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। রোববার বিচারপতি এফ.আর. এম নাজমুল আহসান এবং বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া এবং অ্যাডভোকেট মো. মনিরুল ইসলাম

রাহুল ও অ্যাডভোকেট সোহরাওয়ার্দী সাদ্দাম। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।
অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া বলেন, এই রুল প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে কর্মরত সাড়ে তিন লাখ শিক্ষকের জন্য প্রযোজ্য হবে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
২০১৪ সালের ৯ মার্চ প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এ গেজেট জারি করা হয়েছিল।

এর আগে গত ২৭ মে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমরত ৩০ জন সহকারি শিক্ষক প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ২০১৪ সালের ৯ মার্চ জারি করা ১৪ তম গ্রেডে বেতন নির্ধারনের গেজেট চ্যালেঞ্জ করে ও ১১ তম গ্রেডে তাদের বেতন কেন নির্ধারন করা হবে না এই মর্মে নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রীটটি দায়ের করেন।