ফেসবুকে লাইভে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ব্যারিস্টার সুমনের

0
9

বিশেষ প্রতিনিধিঃ-

ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেফতারের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

রোববার সুপ্রিমকোর্ট চত্বরে দাঁড়িয়ে তার ফেসবুক পেজে লাইভে এসে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমকে শাহবাগ থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এখন তাকে আদালতে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। আইন অনুযায়ী তার ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত হত্যার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা এ মামলার অন্যতম আসামি মোয়াজ্জেম হোসেনের গ্রেফতারে স্বস্তি প্রকাশ করছি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নুসরাতের ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ায় ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ব্যারিস্টার সুমন এ মামলা করেছিলেন।

ব্যারিস্টার সুমন বলেন, আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি পুলিশ প্রশাসনকে, আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি প্রধানমন্ত্রীকে। ধন্যবাদ দিচ্ছি পিবিআইকে (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন), তারা তদন্ত করে রিপোর্ট দিয়েছেন। এখন আমরা তার জামিনের বিরোধিতা করব।

একই সঙ্গে লাইভে তিনি দেশের সব অন্যায়ের প্রতি সবাইকে জেগে ওঠার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, অন্যায় যেখানেই হোক, আপনি প্রতিবাদ করলে তা একসময় বন্ধ হবেই। আমি সিলেটের মানুষ হয়েও ফেনীর ঘটনা নিয়ে প্রতিবাদ করছি।

ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে গত ৬ এপ্রিল পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়। তার দিন দশেক আগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে সোনাগাজী থানায় যান নুসরাত।

থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ওই সময় নুসরাতকে আপত্তিকর প্রশ্ন করে বিব্রত করেন এবং তা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

ওই ঘটনায় সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন গত ১৫ এপ্রিল বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।