সিমান্তে চরম উত্তেজনা, পকিস্তানের সাবমেরিন ক্ষেপণাস্ত্র পরিক্ষা, চীনেরও মোতায়েন

0
4962

নিউজ ডেস্কঃ
ভারত সীমান্তে নিজেদের সামরিক উপস্থিতি বাড়ানো অব্যাহত রেখেছে চীন। বিশেষ করে তিব্বতসংলগ্ন এলাকায় নীরবেই সামরিক উপস্থিতি বাড়াচ্ছে দেশটি। ডোকলামকে কেন্দ্র করে চীন-ভারতের মধ্যে প্রায় ৩ মাসের অচলাবস্থা কেটে যাওয়ার পরও এমন তৎপরতা জোরদার করা হয়েছে।
ভারত সীমান্তের কাছাকাছি অবস্থিত চীনের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল তিব্বত। বৃহস্পতিবার কাশ্মীর টাইমস জানায়, দু’দেশের সীমান্ত রেখা লাইন অব কন্ট্রোল এলাকায় নতুন করে সামরিক তৎপরতা জোরদার করেছে চীন। সীমান্তে বিভিন্ন মাত্রার ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে বেইজিং।
এসব ক্ষেপণাস্ত্র ২৫০ থেকে হাজার কিলোমিটার দূরের টার্গেট ধ্বংস করতে সক্ষম। তিব্বতের গোংগা বেসামরিক বিমানবন্দরের উন্নয়ন করছে চীনা সেনাবাহিনী পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএল)।
এছাড়া দক্ষিণাঞ্চলীয় তিব্বতের বুড়াং, লাহুনজি এবং তিনগিরিতে তিনটি বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনাও হাতে নিয়েছে বেইজিং। চীনভিত্তিক একটি সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এ খাতে ২৬০ কোটি ডলার ব্যয় করা হবে এবং ২০২১ সালের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হবে।
অবশ্য, ভারতের নিরাপত্তা প্রশাসনের সঙ্গে জড়িত একটি সূত্র বলছে, তিব্বতের সর্বশেষ পরিস্থিতির বিষয়ে অবহিত আছে নয়াদিল্লি। চীনা সেনাবাহিনীর বিমানবন্দর নির্মাণ কাজে নজরদারির জন্য দেশটির ইয়ুক্সি শহরে একটি গোপন গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র ইউনিট মোতায়েন রয়েছে।
ভারতের অরুণাচল প্রদেশ থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে ওই সেনা ইউনিটের অবস্থান। ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্র অনুসারে, ইয়ুক্সি শহরে ‘৬২২ মিসাইল ব্রিগেড’ মোতায়েন করেছে চীন।
এছাড়া নতুন ঘাটিতে দূরপাল্লার কিল মিসাইলও মোতায়েন করেছে দেশটি। গোয়েন্দা সূত্র আরও বলছে, ভারতের বিরুদ্ধে পশ্চিমা থিয়েটার কমান্ড আরও শক্তিশালী করেছে চীন। আর এখন দক্ষিণ থিয়েটার কমান্ডে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের তথ্য সামনে এল।
চীনের এ সামরিক তৎপরতায় নজর রাখা একটি সূত্র বলছে, ‘ইয়ুক্সি শহর ভারত সীমান্তের খুব কাছাকাছি। চীনের মিসাইল ব্রিগেড মোতায়েনের পর আমরা এর পেছনে বেইজিংয়ের পরিকল্পনা কি তা জানার চেষ্টা করছি।’
এছাড়া চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির রকেট ফোর্সের ‘৬২২ মিসাইল ব্রিগেড’ সম্পর্কেও জানার চেষ্টা করছেন ভারতীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।
এদিকে আজ পাকিস্তান সাবমেরিন থেকে পারমানবিক বোমা বহন যোগ্য ক্ষেপনাস্রের সফল পরিক্ষা ভারতীয় সামরিক বাহিনিকে ভাবিয়ে তুলেছে যা ৫০০ কিলোমিটারের মধ্যে আঘাত হানতে সক্ষম।