জিয়া জাদুঘরের নামফলকে কালি লেপন ছাত্রলীগের

0
49

অনলাইন ডেস্ক: ভোলানিউজ.কম,

নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব করার এক দিন পরই চট্টগ্রামের জিয়া স্মৃতি জাদুঘরের ফলক থেকে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের নাম কালি লেপে মুছে দিয়েছেন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

‘মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ছাত্র ফোরাম’ সংগঠনের ব্যানারে আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রাম নগরীর কাজীর দেউড়ীতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের এক মানববন্ধনের পর এ ঘটনা ঘটে। মানববন্ধন থেকে জিয়ার পরিবর্তে ‘মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর’ নামকরণের দাবি করা হয়।

সোমবার শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল মন্ত্রিসভার বৈঠকে জিয়া স্মৃতি জাদুঘরের নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব দেন। পরদিন আজ জাদঘুরের সামনে মানববন্ধনের পর জাদুঘরের নামফলক কালি দিয়ে মুছে দেন ছাত্রলীগের নেতা আবদুর রহিম শামীম।

এই জাদুঘর ভবনে ১৯৮১ সালের ৩০ মে সেনা কর্মকর্তা মঞ্জুরের নেতৃত্বে একদল সেনাসদস্য তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াকে হত্যা করেন। তখন এই ভবনের নাম ছিল চট্টগ্রাম সার্কিট হাউস। পরে জিয়ার স্মৃতির উদ্দেশে এটিকে জাদুঘরে রূপান্তর করা হয়।

জাদুঘরের নামফলকে কালি লেপনকারী ছাত্রলীগ নেতা আবদুর রহিম শামীম বলেন, ‘জিয়া একজন বিতর্কিত মানুষ। তার নামে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জাদুঘর হতে পারে না। তাই তার নাম মুছে দিয়েছি।’

এর আগে মানববন্ধনে মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ জিয়াকে একজন বিতর্কিত মানুষ হিসেবে আখ্যায়িত করেন এবং স্বাধীনতা দিবসের আগে জাদুঘরের নাম পরিবর্তন করে ‘মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর’ নামকরণের দাবি জানান।

মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ছাত্র ফোরামের সভাপতি ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুর রহিম শামীমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ও নগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক রাহুল দাশের পরিচালনায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

(আরজে, ১২ফেব্রু-২০১৯ইং)