স্বাধীনতার পর ‘আমি মুক্তিযোদ্বা’ মুক্তিযোদ্ধারা বলতে পারেনি -এসপি মোকতার

0
98

আল-আমিন এম তাওহীদ,ভোলানিউজ.কম,

মহান মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদান রাখায় পুলিশ মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দিয়েছেন ভোলা জেলা পুলিশ।
মঙ্গলবার (১৮ডিসেম্বর ) সকালে জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোকতার হোসেনের সভাপতিত্বে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

সংবর্ধনাকালে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সাব্বির হোসেন, প্রেসক্লাবের আহবায়ক এমএ তাহের, সদর ওসি ছগির মিয়া, ডিবি ওসি শহিদুল ইসলাম, আরটিভির ভোলা প্রতিনিধি অমিতাভ রায় অপুসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া সাংবাদিকবৃন্দ এব ১২জন মুক্তিযোদ্ধা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা পুলিশ সুপার মোঃ মোকতার হোসেন বলেন, বাংলাদেশ যদি স্বাধীন না হতো তাহলে মানুষ পাকিস্তানিদের কাছে জিম্মি থাকতেন। এ দেশের ৬৪টি জেলা এবং মানুষের এতো কর্মসংস্থানও হতো না। আমার মতো পুলিশ কখনো জেলার এসপি হতে পারতাম না। পুলিশ মুক্তিযোদ্ধারা সর্বপ্রথম রাজারবাগে পাকিস্তানিদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। স্বাধীন হওয়ার পর এক সময়ে এদেশের মুক্তিযোদ্ধারা কেউ কথা বলতে পারেনি ‘‘আমি মুক্তিযোদ্ধা’’ কোন মুক্তিযোদ্ধা স্বাধীনভাবে চলতে পারেনি। ষড়যন্ত্রকারীরা দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও তৎপর ছিল। মাথা উচুঁ করে কথা কিংবা চলাফেরা করতে পারেনি দেশের সূর্য সন্তান মুক্তিযোদ্ধারা। বর্তমান সরকার শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর দেশের মুক্তিযোদ্ধাদের ভাগ্য পরিবর্তন হয়েছে, সমাজের কাছে সম্মানিত হয়েছেন এবং সকল সুবিধা ভোগ করছেন।

পরে আলোচনা শেষে, মুক্তযোদ্ধাদের হাতে ফুল দিয়ে বরণ এবং সম্মানা তুলে দেন জেলা পুলিশ সুপার।

(আল-আমিন এম তাওহীদ, ১৮ডিসেম্বর-২০১৮ইং)