ভোলার গাইনী ডাঃ অাফরোজার তুঘলকি কান্ড

0
3217

নিউজ ডেস্কঃ

ভোলা নিউজ-০৪.০৬.১৮

ভোলার গাইনী ডাঃ অাফরোজার ভুল অপারেশনে সালমা নামের এক গৃহবধু জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে। মামলার প্রস্তুতি স্বামী।

ভোলার গাইনী ডাঃ অাফরোজা বেগমের ভুল অপারেশনে সালমা বেগম নামের এক প্রসুতি মা শংকটাপন্ন জীবন নিয়ে এখন বরিশাল শেবাচিমে ভর্তি। সালমা বেগমের স্বামী জানিয়েছেন ভুল সিজারে তার স্ত্রীর ব্লিডিং শুরু হলে তাকে দ্রুত বরিশাল শেবাচিমে প্রেরন করলে সেখানকার ডাঃ গন দ্রুত পুনরায় সালমাকে পাল্টা অপারেশন এর মাধ্যমে রক্ত যাওয়া রোধ করেন। তিনি জানিয়েছেন সকল কাগজপত্র সংগ্রহ করে ভোলায় ফিরে অাইনী ব্যবস্থা নিবেন।

জামাল উদ্দিন অভিযোগ করেন, গত ২০ মে ২০১৮ তিনি তার সন্তান সম্ভবা স্ত্রী সালমাকে সকালে এনে ভোলা মুসলিম পাড়ার মাতৃনীলয় ক্লিনিকে ভর্তি করান। ক্লিনিক কতৃপক্ষের ১৫ হাজার টাকা কন্ট্রাক্টে অামার স্ত্রীকে অপারেশন এর জন্য রাজী হলে তারা গাইনী ডাঃ অাফরোজা বেগমকে কল করে অানেন। অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে অপারেশন কালীনই ডাঃ অাফরোজা অামার স্ত্রীর কোন একটি রগ ভুল সিজারে কেটে ফেলেন। সিজারে অামার একটি কন্যা সন্তান জম্ম নিলেও প্রচুর রক্তপাত অারম্ভ হলে তারা অামার স্ত্রীকে তাৎক্ষনিক বরিশাল শেবাচিমে রেফার করে।

শেবাচিমের ডাঃ গন জরুরী ভাবে রোগীনী সালমা বেগমকে পুনরায় অপারেশন এর মাধ্যমে রক্ত যাওয়া বন্ধ করলেও অতিরিক্ত রক্তক্ষরনে তার অবস্থা সঙ্গীন। সালমা বেগম এখনো শেবাচিমে চিকিৎসাধীন অাছেন। এদিকে সালমার স্বামী জামাল উদ্দিন জানিয়েছেন সব কাগজপত্র ও প্রমান তিনি সংগ্রহ করেছেন। অসুস্থ্য স্ত্রীর ট্রিটমেন্ট শেষে ভোলায় ফিরেই তিনি অভিযুক্ত গাইনী ডাঃ অাফরোজার বিরুদ্ধে অাইনী ব্যবস্থা নিবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here